সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৪৪ অপরাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
পঞ্চগড়ে মন্দিরে যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে শিশুসহ ২৪ জনের মৃত্যু হিজাব ইস্যুতে উত্তাল ইরান: নারীসহ ৭০০ বিক্ষোভকারী গ্রেফতার, নিহত ৩৫ শারদীয় দুর্গাপূজা: হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বেড়েছে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য, বেরোবি শিক্ষার্থী আটক আগামী পহেলা ডিসেম্বর বিভাগীয় লেখক পরিষদ রংপুরের এক যুগ পূতি নগরজুড়ে চ্যাম্পিয়নদের ছাদ খোলা বাসে বিজয় শোভাযাত্রা খোলা বাসে বিলবোর্ড মাথায় লেগে আহত ফুটবলার ঋতুপর্ণার মাথায় দুই সেলাই এই ট্রফি আমাদের দেশের জনগণের জন্য রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা: ৪ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল দিনাজপুর বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার চার বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত

কম দামে তেল কিনে নতুন বাড়তি দামে বিক্রি, হঠাৎ করেই বাংলাদেশ যেন তেলের ‘খনি’

এপ্লাস অনলাইন
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১১ মে, ২০২২
সয়াবিন তেল এবং পাম অয়েল কোনো খনিজ পদার্থ নয়। একটি উৎপাদন হয় কৃষিজমিতে, আরেকটি গাছে। কিন্তু হঠাৎ করেই পুরো বাংলাদেশ যেন সয়াবিন তেলের ‘খনি’তে পরিণত হয়েছে। কখনও সয়াবিন তেলের ‘খনি’র সন্ধান মিলছে ঘরের বাঙ্কারে আবার কখনও গোডাউনের ভেতরে। আর দেশকে সয়াবিন তেলের খনিতে পরিণত করেছে অতিমুনাফালোভী ব্যবসায়ীরা। আগের কম দামে তেল কিনে নতুন বাড়তি দামে বিক্রি করতে সারা দেশে তারা লুকিয়ে রেখেছিল সয়াবিন তেল। সেগুলোরই এখন সন্ধান মিলছে এক এক করে।
কোনো জেলায় ১ লাখ লিটারের বেশি, কোথাও ৭৭ হাজার লিটার, কোনো জেলায় ৫৭ হাজার লিটার আবার কোথাও ৪০ হাজার লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার হচ্ছে। এ অবস্থা দেখে বাজার বিশ্লেষক ও অর্থনীতিবিদরা বলছেন, দেশের ভোজ্য তেল ব্যবসায়ীরা অসাধুতার নিকৃষ্টতম নজির স্থাপন করল। ভোজ্য তেল গায়েব করে দিয়ে এভাবে দেশের মানুষের টাকা লুটপাট করা তাদের মোটেই সমীচীন হয়নি।
এ বিষয়ে কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সভাপতি গোলাম রহমান সময়ের আলোকে বলেন, ‘ব্যবসায় মুনাফা করতে হবে ঠিক আছে, তাই বলে মুনাফার নামে এভাবে তেল জিম্মি করে মানুষের অর্থ লুটপাট করবে তারা এটি মেনে নেওয়া যায় না। আসলে ব্যবসায়ীদের উচিত ছিল এই সঙ্কটকালে কীভাবে একটু কম দামে তেল বিক্রি করে দেশের মানুষকে কিছুটা স্বস্তি দেওয়া যায়। কিন্তু ব্যবসায়ীরা তা না যেভাবে সঙ্কট সৃষ্টি করেছে তাতে তাদের ব্যবসায়ী না বলে মুনাফাখোর ও অর্থলোপাটকারী হিসেবে অখ্যায়িত করা উচিত।’
গত প্রায় ৬ মাস ধরে দেশের ভোজ্য তেলের বাজার টালমাটাল অবস্থা। বিশ্ববাজারে দাম বৃদ্ধির কারণে তেলের বাজারে সঙ্কট আরও বেশি হয় গত রোজার আগ থেকে। আর ঈদের আগের এক সপ্তাহ ও পরের এক সপ্তাহে দেশ থেকে ভোজ্য তেল একরকম গায়েব করে দিয়ে ব্যবসায়ীরা তেলের বাজারের সঙ্কটকে আরও চরম পর্যায়ে নিয়ে যায়। ঈদের আগেই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ঘোষণা দেয় ঈদের পর ৫ মে তেলের দাম পুনঃ নির্ধারণ করা হবে। মূলত এ খবরেই ভোজ্য তেলের মিলমালিক, ডিলার, পাইকারি এবং খুচরা- সব পর্যায়ের ব্যবসায়ী তেল লুকিয়ে ফেলে। এতে দেশের বাজার একেবারে তেলশূন্য হয়ে পড়লে তেলের জন্য বাজারে হাহাকার পড়ে যায়। ফলে নড়েচড়ে বসে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ভোক্তা অধিদফতর।
গত রোববার থেকে একযোগে রাজধানী ঢাকাসহ ৬৪ জেলায় তেলের সন্ধানে অভিযানে নামে ভোক্তা অধিদফতর। অভিযানে নামা প্রথম দিন থেকেই বের হতে শুরু করে তেলের খনি। রবি থেকে গতকাল মঙ্গলবার- এই তিন দিনে দেশের বেশ কয়েকটি জেলা মিলে মোট ৩ লাখ ৭১ হাজার ১৩৮ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার করেছে ভোক্তা অধিদফতরের টিম। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সয়াবিন তেল উদ্ধার হয়েছে রাজশাহী জেলায়। জেলার বাঘা উপজেলায় সোমবার উদ্ধার হয় ২৬ হাজার ৭২৪ লিটার সয়াবিন তেল। আর গতকাল রাজশাহীর বানেশ্বর এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয় ৯২ হাজার ৬১৬ লিটার সয়াবিন তেল। সব মিলিয়ে রাজশাহী জেলাতেই উদ্ধার করা হলো ১ লাখ ১৮ হাজার ৬১৬ লিটার তেল।
এ ছাড়া চট্টগ্রাম জেলায় তিন দিনে উদ্ধার হয়েছে ৭৫ হাজার ৩৭৮ লিটার, খাগড়াছড়িতে ৫৭ হাজার লিটার, কুষ্টিয়ায় ৪০ হাজার লিটার, ঢাকায় ৩০ হাজার লিটার, পাবনায় ১৮ হাজার ২৪৪ লিটার, গোপালগঞ্জে ১২ হাজার লিটার, গাজীপুরে ৭ হাজার ১৫৮ লিটার, সিরাজগঞ্জে ৬ হাজার লিটার, সিলেটে ৫ হাজার লিটার এবং দিনাজপুরে ১ হাজার লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার করা হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত। ভোক্তা অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, এ অভিযান এখনও চলবে। সুতরাং আগামী দিনগুলোতে অন্য জেলায়ও তেলের সন্ধান মিলবে- এটা নিশ্চিত।
এ বিষয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক এএইচএম শফিকুজ্জামান সময়ের আলোকে বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা যেভাবে সয়াবিন তেল লুকিয়ে রেখেছে তা দেখে আমরা হতবাক হয়ে গেছি। কতটা অসৎ হলে ব্যবসায়ীরা এ ধরনের কাজ করতে পারে। সুতরাং আমরা এই অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট ভেঙে দিতে সার্বাত্মক চেষ্টা চালাব। আমরা অভিযান আরও জোরদার করব। এক্ষেত্রে তাদের কোনো রকম ছাড় দেব না।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!