সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১৪ অপরাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
মেহেদি ম্যাজিকে বাংলাদেশের রুদ্ধশ্বাস জয় ”আর্জেন্টিনার সমর্থকরা পতাকার চুরির মিথ্যা অভিযোগে আমাকে পিটিয়েছে” নকল ধরা পড়ায় তৃতীয় তলা থেকে লাফিয়ে ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা ভোট চুরি করে খালেদা জিয়া ক্ষমতায় এসেছিলেন: চট্টগ্রামের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী ১০ ডিসেম্বরকে কেন্দ্র করে ঢাকায় পুলিশের ‘ব্লক রেইড’, বেগম জিয়ার বাসার প্রবেশ রাস্তায় চেকপোস্ট মেসি নৈপুণ্য ও মার্টিনেজের গোল রক্ষার কৌশলে কোয়ার্টারে আর্জেন্টিনা সুন্দরগঞ্জে সড় দূর্ঘটনায় বৃদ্ধের মৃত্যু খেলা হবে এই ডিসেম্বরে বিজয়ের মাসে: ওবায়দুল কাদের জাঁকিয়ে বসবে শীত, আসছে শৈত্যপ্রবাহ; ৮ ডিগ্রিতে নামতে পারে তাপমাত্রা শেষ মুহুর্তের গোলে ব্রাজিলকে হারিয়ে চমকে দিলো ক্যামেরুন

নারীদের কাছ থেকে ছয় কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে রংপুর র‌্যাব-১৩

প্রতিবেদকের নাম:
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সমবায় সমিতির নাম ভাঙিয়ে লোভনীয় অফার দিয়ে গ্রামের সহজ-সরল নারীদের কাছ থেকে ছয় কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া এক প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-১৩।

গ্রেপ্তার মামুন হাসান মালিক ওরফে আদম সুফী (৪৫) নীলফামারীর ডোমারের সাহাপাড়ায় ভোগ্যপণ্য সমবায় সমিতি নামে একটি পরিচালনা করতেন।

সমিতির ব্যানারে এলাকার সহজ-সরল নারীদের সদস্য করে লোভনীয় অফার দিয়ে দুই মাসে ছয় কোটি টাকা হাতিয়ে নেন মামুন হাসান। ওই টাকা আত্মসাতের উদ্দেশ্যে সমিতির কার্যালয়ে তালা দিয়ে আত্মগোপনে যান তিনি। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ঢাকায় তার আত্মীয়ের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে র‍্যাব-১৩ রংপুর সদর কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর আব্দুল্লাহ আল মঈন হাসান।

মেজর আব্দুল্লাহ আল মঈন হাসান বলেন, গত নভেম্বর মাস থেকে মামুন হাসান সহযোগীদের নিয়ে ডোমার থানার সাহাপাড়ায় সাবেক কুইন্স কিন্ডারগার্টেনে ঘর ভাড়া নিয়ে ডোমার বাজার ভোগ্যপণ্য সমবায় সমিতি নামে ব্যানার লাগিয়ে ব্যবসা শুরু করেন। সেখানের সহজ-সরল নারীদের টার্গেট করে সমবায় সমিতির মাধ্যমে লোভনীয় অফার দিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়া শুরু করেন মামুন হাসান ও তার সহযোগীরা।

আদম সুফীকে গ্রেপ্তারের পর রংপুর সদর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব সমবায় সমিতির মাধ্যমে কয়েকজন নারী সদস্য প্রাথমিকভাবে তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী মূল টাকাসহ লভ্যাংশ পেলেও এলাকার অধিক সংখ্যক নারী সহায়-সম্বল বিক্রি করে সমিতির সদস্য হন। এভাবে সমবায় সমিতির আড়ালে নারীদের কাছ থেকে দুই মাসে ছয় কোটি টাকা সংগ্রহ করে প্রতারক চক্রটি। পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ওই টাকা আত্মসাতের উদ্দেশ্যে সমিতির কার্যালয় বন্ধ করে পালিয়ে যান মামুন হাসান ও তার সহযোগীরা।

তাদের এমন প্রতারণার শিকার হয়ে ভুক্তভোগীরা বিভিন্নভাবে সমস্যায় পড়েন। কয়েকজন নারী তালাকপ্রাপ্ত হন। এ ঘটনায় সমিতির এক নারী সদস্য হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

মেজর মঈন হাসান আরও বলেন, প্রতারণার শিকার সমিতির প্রায় শতাধিক নারী সদস্য গত ২০ ডিসেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি দেন। সেই সঙ্গে নীলফামারীর ডোমার থানায় গত ২৪ জানুয়ারি চার প্রতারকের নামে মামলা করেন। একই সঙ্গে র‍্যাব-১৩-এর কাছে একটি অভিযোগ দেন ভুক্তভোগীরা।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‍্যাব বিষয়টি অনুসন্ধান ও তদন্ত করে প্রতারক চক্রের মূলহোতা মামুন হাসানকে ঢাকার সাভারের এক আত্মীয়ের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন মামুন হাসান। তার সঙ্গে জড়িত অন্যদেরও গ্রেপ্তার করা হবে বলেও জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা। Aplusnews.live//**

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!