সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:১২ অপরাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
পঞ্চগড়ে মন্দিরে যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে শিশুসহ ২৪ জনের মৃত্যু হিজাব ইস্যুতে উত্তাল ইরান: নারীসহ ৭০০ বিক্ষোভকারী গ্রেফতার, নিহত ৩৫ শারদীয় দুর্গাপূজা: হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বেড়েছে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য, বেরোবি শিক্ষার্থী আটক আগামী পহেলা ডিসেম্বর বিভাগীয় লেখক পরিষদ রংপুরের এক যুগ পূতি নগরজুড়ে চ্যাম্পিয়নদের ছাদ খোলা বাসে বিজয় শোভাযাত্রা খোলা বাসে বিলবোর্ড মাথায় লেগে আহত ফুটবলার ঋতুপর্ণার মাথায় দুই সেলাই এই ট্রফি আমাদের দেশের জনগণের জন্য রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা: ৪ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল দিনাজপুর বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার চার বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত

বসন্ত আর ভালোবাসা দিবসের রঙ্গে অন্যরকম রংপুর

রাজিমুজ্জামান হৃদয়
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
ঋতুরাজ বসন্তকে বরণ করে নেওয়ার রীতি বেশ পুরাতন। শহর থেকে গ্রামে বসন্তের বাতাসে যেন সবার মনে সুর বেজে ওঠে। পাশাপাশি ভালোবাসা দিবস উদযাপনও এখন বাঙালি সংস্কৃতির তথাকথিত অংশ।  বসন্তের আগমন ও ভালোবাসা দিবস একইদিনে হওয়ায় অন্যরকম মাত্রা পায় এই উৎসব। করোনাকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে নাচে-গানে, কথনে-পংক্তিতে ভালোবাসা বিনিময় করেন রংপুর শহরের বাসিন্দারা। মেতে উঠেন ভালোবাসা উদযাপনে।
১৩ ফেব্রুয়ারি পহেলা ফাল্গুনের বসন্ত বরণ এবং ১৪ ফেব্রুয়ারিতে ভালোবাসা দিবস উদযাপন হয়ে আসছে দীর্ঘদিন থেকে। তবে কয়েক বছর থেকে দুটি দিবসের উদযাপন একই দিনে।
সোমবার সকাল থেকে  নগরীর পার্ক, রেস্টুরেন্ট ও পথে পথে সবখানে ছিল মানুষের উপচে পড়া ভিড়। অনেকের মতে, সম্প্রতিক সময়ে আজই সবচেয়ে বেশি যানজট ও মানুষের ভিড় ছিল রংপুরের রাস্তায়।
রংপুর যাদুঘর অর্থাৎ ঐতিহাসিক তাজহাট জমিদার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, জোড়ায় জোড়ায় বসে উচ্ছ্বসিত ‍ তরুণ-তরুণীরা যেন প্রকৃতির মাঝে পুরো এলাকা জুড়ে ভালোবাসার আল্পনা এঁকেছেন। গল্প করেছেন হাসিমুখে, মিষ্টি খুনসুটি চলেছে সময়ে সময়ে আর স্মৃতি ধরে রাখতে সেলফিতে মেতে রয়েছেন অনেকে।
কথা হয় এক যুগলের সঙ্গে, তারা দুইজনেই একই কলেজের শিক্ষার্থী। ছেলেটি বাসন্তী রঙ্গের পাঞ্জাবি পরা আর মেয়েটি বাসন্তী শাড়িতে সুসজ্জিত। মাথায় ফুলের বেড়ি, খোঁপায় আর গলায় গাঁধা ফুলের মালা। মেয়েটি জানান, ফুলের বেড়ি আর মালা তার সঙ্গে থাকা ভালোবাসার মানুষটির দেয়া উপহার।
তারা বলেন, বেশ কয়েকদিন আগে থেকে ভাবছি, দিনটি কীভাবে স্মরণীয় করে রাখা যায়। পরে দুই জনে মিলে সিদ্ধান্ত নিলাম, সকালে তাজহাট জমিদার বাড়িতে ঘুরবো। দুপুরে রেস্টুরেন্টে খেয়ে চিড়িয়াখানায় যাবো, সেখান থেকে সুরুভি উদ্যান।
পার্ক  গুলোতে গিয়ে দেখা যায়, নানা রঙের শড়িতে সেজে গুজে প্রিয়জনদের সঙ্গে তরুণীরা। শাড়ির সঙ্গে ম্যাচিং করে পরেন বাহারি গহনা। মাথায় ফুলের রিং তোড়া, খোপায় রক্ত গোলাপ বা বেলির মালা। তরুণদের পরনে ছিল রঙ-বেরঙের পাঞ্জাবী। অনেকে আবার বাচ্চাদের নিয়ে আসেন বসন্ত বরণ দেখাতে।
আফনান অহনা নামের এক তরুণী বলেন, ভালোবাসা দিবস তো আছেই। তবে আমি এসেছি ফাল্গুন উপলক্ষে ঘরের বাইরের পরিবেশ উপভোগ করতে। রায়হান রাহি নামের এক যুবক বলেন, অনেক দিন পর স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে রাজবাড়িতে এসেছি।
এদিকে বসন্ত বরণ এবং ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে এদিন বিভাগীয় এই শহরে ফুলের দাম বেড়ে যায়। দশ টাকার গোলাপ বিক্রি হয় ৩০ থেকে ৫০ টাকায়। তবুও প্রিয়জনদের ফুল দিতে দ্বিধাবোধ করেন না প্রেমিক প্রেমিকারা। এমন চিত্রও দেখা গেছে।
ফুলের দোকানগুলোতে এখন দারুণ ব্যস্ততা। গাঁদা, গোলাপ, রজনীগন্ধা থেকে শুরু করে দেশি বিদেশি নানা জাতের ফুলের ভীষণ চাহিদা। গত কয়েক বছর ধরেই এসব দিনে নারীদের পছন্দের আভরণ হয়ে উঠেছে ফুলের মুকুট, সঙ্গে চিরায়ত ঢঙে খোঁপায় রঙিন ফুলের সাজ তো আছেই।
তাজহাট জমিদার বাড়ি ছাড়াও শিরিন পার্ক, কালেক্টরেট সুরুভি উদ্যান, চিড়িয়াখানা, প্রয়াস সেনা বিনোদন পার্ক, চিকিলির বিল, চিকলি ওয়াটার পার্ক ,টাউন হল , কারমাইকেল কলেজ ও বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে  ছিল মানুষের উপচে পড়া ভিড়। এসব জায়গায় যেতে বা আসতে পড়তে হয় যানজটের ভোগান্তিতে।
চিড়িয়াখানায় ঘুরতে আল-সরওয়ার বলেন, এত জানযট হবে ভাবতেই পারিনি। প্রিয়জনকে সময় দিতে যানজট ‍উপেক্ষা করেই মোটরসাইকেল নিয়ে বের হয়েছি।
সবকিছু মিলিয়ে রংপুরবাসীর মধ্যে অন্যরকম এক আনন্দ বসন্ত বরণ ও ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে।
রাজিমুজ্জামান হৃদয়//এইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!