শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন

মির্জা ফখরুলের বাসায় মনোনয়ন বঞ্চিতদের সমর্থকদের হামলা

প্রতিবেদকের নাম:
  • আপডেট সময় : শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাসার সামনে বিক্ষোভ করেছেন ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে দলটির মনোনয়ন বঞ্চিতদের সমর্থকরা।

 

শনিবার (১০ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর উত্তরায় বিএনপি মহাসচিবের বাসার সামনে শতাধিক নেতাকর্মী জড়ো হয়ে এ বিক্ষোভ করেন। এসময়ে মির্জা ফখরুলের বাসার ভেতরে অবস্থান করছিলেন বলে জানা গেছে।

 

জানা গেছে, ঢাকা-১৮ আসনে বিএনপির প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে এ আসনের অপরাপর সাতজন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা এ বিক্ষোভে অংশ নেন। দুপুরের পর থেকে তারা বিএনপি মহাসচিবের বাসার সামনে অবস্থান নিয়ে জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। প্রতিবাদের শেষ পর্যায়ে বিক্ষুব্ধরা মির্জা ফখরুলের বাসভবন লক্ষ্য করে শতাধিক ডিম ছুড়ে মারেন বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

 

ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে ৯ জন প্রার্থী বিএনপি থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তাদের মধ্যে মহানগর উত্তর যুবদলের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীরকে মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। গত শুক্রবার মির্জা ফখরুল এ প্রার্থিতা ঘোষণা করেন। এর আগে গত ১২ সেপ্টেম্বর ওই আসনে ৯ প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেওয়ার দিনে এসএম জাহাঙ্গীর ও অপর মনোনয়ন প্রত্যাশী এম কফিল উদ্দিনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ১৭ জন নেতাকর্মী আহত হন। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য এস এম জাহাঙ্গীরকে দায়ী করে সাতজন মনোনয়ন প্রত্যাশী বিএনপির হাইকমান্ডের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। বিএনপি মহাসচিবের বাসার সামনে বিক্ষোভকালে ওই সাতজন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরাই উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে। তারা একজোট হয়ে এস এম জাহাঙ্গীরকে প্রতিহত করার ঘোষণাও দেন।

 

মির্জা ফখরুলের বাসায় ডিম ছুড়ে মারার বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, এ ঘটনায় মহাসচিব খুব মর্মাহত হয়েছেন। নেতাকর্মীদের কিছু বলার থাকলে দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে বলতে পারতেন। তিনি একটি ভাড়া বাসায় থাকেন। সেখানে এ ধরনের ঘটনা ঘটানো অনাকাঙ্খতি।

 

এ ব্যাপারে কফিল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমি জানি না কারা সেখানে বিক্ষোভ করেছেন, কারা ডিম-পাথর ছুড়েছেন। আমি আমার ফ্যাক্টরিতে গিয়েছিলাম। তখন মহাসচিব আমাকে ফোন করেছিলেন। আমি বলেছি, এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই।’

 

আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী বাহাউদ্দিন সাদী বলেন, ‘তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। এ ধরনের ঘটনা অপ্রত্যাশিত। যদি কারো মধ্যে রাগ-ক্ষোভ থাকেই তাহলে তা দলীয় ফোরামে আলোচনা করতে পারতেন। কিন্তু দলের মহাসচিবের বাসায় এ ধরনের ঘটনা খুবই দুঃখজনক।’

 

এদিকে রাতে বিএনপি অফিস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উত্তরার বাসভবনে কতিপয় উচ্ছৃঙ্খল বহিরাগত ব্যক্তি ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে বাসার ক্ষতি করে।

 

এদিকে সন্ধ্যায় বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। সভায় এ অনাকাঙ্খিত সন্ত্রাসী ঘটনার তীব্র ক্ষোভ, নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!