সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:২৪ অপরাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
পঞ্চগড়ে মন্দিরে যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে শিশুসহ ২৪ জনের মৃত্যু হিজাব ইস্যুতে উত্তাল ইরান: নারীসহ ৭০০ বিক্ষোভকারী গ্রেফতার, নিহত ৩৫ শারদীয় দুর্গাপূজা: হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বেড়েছে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য, বেরোবি শিক্ষার্থী আটক আগামী পহেলা ডিসেম্বর বিভাগীয় লেখক পরিষদ রংপুরের এক যুগ পূতি নগরজুড়ে চ্যাম্পিয়নদের ছাদ খোলা বাসে বিজয় শোভাযাত্রা খোলা বাসে বিলবোর্ড মাথায় লেগে আহত ফুটবলার ঋতুপর্ণার মাথায় দুই সেলাই এই ট্রফি আমাদের দেশের জনগণের জন্য রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা: ৪ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল দিনাজপুর বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার চার বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত

রংপুরে প্রেমের সম্পর্কে বিয়ে, যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে হত্যা; স্বামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২২

রংপুরে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী মুনিম সরকার (২৬) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বদরগঞ্জ উপজেলার কালীগঞ্জ গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

পুলিশ ও স্বজনরা জানান, ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে না পেয়ে স্ত্রী ইশিতা জাহান ইশাকেকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন তার স্বামী আব্দুল মনিম সরকার। শুক্রবার রাতে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের খাগড়াবন্দ পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

চার বছর আগে প্রেমের সম্পর্কের জেরে রংপুরের সদর উপজেলার শাহাপাড়া খলেয়া গঞ্জিপুর গ্রামের ইলিয়াছ শাহের মেয়ে ইশার সঙ্গে বদরগঞ্জ উপজেলার খাগড়াবন্দ পশ্চিম পাড়া গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলে মনিম সরকারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্ত্রীকে যৌতুকের জন্য প্রায়ই নির্যাতন করতেন স্বামী মনিম। এসব ঘটনায় অতিষ্ঠ হয়ে ইশা স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে বাবার বাড়িতে চলে যান।

 

পরে বিষয়টি দুপক্ষের স্বজনদের মধ্যে মীমাংসা হলে আবারও সংসার শুরু করেন তারা। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য স্ত্রীর ওপর নির্যাতন শুরু করেন মনিম। একপর্যায়ে বদরগঞ্জ উপজেলা সদরের বালুয়া ভাটা মহল্লার বাসা থেকে ইশাকে খাগড়াবন্দ পশ্চিমপাড়ার গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। সেখানে আবার তার শাশুড়ি যৌতুকের জন্য তাকে মারধর করতেন বলে অভিযোগ স্বজনদের।

 

শুক্রবার রাতে ইশার স্বামী মনিম গ্রামের বাড়িতে আসেন। এরপর স্ত্রীকে বলেন, বিকাশের মাধ্যমে রাতের মধ্যে বাপের বাড়ি থেকে ৫০ হাজার টাকা এনে দিতে। ইশা টাকার কথা বলতে পারবে না জানালে তাকে কাঠ দিয়ে মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

 

ঈশিতার বড় বোন তৈয়বা বেগম জানান, দ্বিতীয়বার ঈশিতাকে বিয়ে করার পর থেকে যৌতুকের দাবিতে মুনিম সরকার প্রায়ই তার বোনকে মারধর করতেন।

 

এ বিষয়ে বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে গৃহবধূর মাথা ও শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এটা আঘাতজনিত কারণে মুত্যু বলে আমরা নিশ্চিত হওয়ার পর স্বামী মনিমকে আটক করেছি। পরে ঈশিতাকে হত্যার অভিযোগে তার মা মার্জিয়া বেগম বাদী হয়ে থানায় জামাতাসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করলে মুনিমকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে এবং আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণ করেছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!