বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:০৩ পূর্বাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে পঞ্চগড়ের নৌকাডুবির খবর পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি ট্রাজেডি: অর্ধশত মরদেহ উদ্ধার বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন : বেরোবি উপাচার্য স্বজনদের আহাজারিতে ভারি করতোয়ার পাড় পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি: দিনাজপুরের পুনর্ভব নদীতে ভেসে এলো ৮ জনের লাশ করতোয়ার পাড়ে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের সারি, মৃত্যু বেড়ে ৩৯ পঞ্চগড়ে মন্দিরে যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে শিশুসহ ২৪ জনের মৃত্যু হিজাব ইস্যুতে উত্তাল ইরান: নারীসহ ৭০০ বিক্ষোভকারী গ্রেফতার, নিহত ৩৫ শারদীয় দুর্গাপূজা: হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বেড়েছে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য, বেরোবি শিক্ষার্থী আটক

রংপুরে ভয়াবহ লোডসেডিং,তীব্র গরমে হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ১৫ জন হাসপাতালে ভর্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২

রংপুরে সড়কের পাশে বিক্রি হচ্ছে লেবু, আখ,তরমুজসহ বিভিন্ন ফলের শরবত। তা পান করে গরম থেকে কিছুটা স্বস্তি পাওয়ার চেষ্টা পথচারীদের। কেননা রংপুর অঞ্চলে এবার তীব্র গরমে হাঁসফাঁস করছে মানুষ। গ্রীষ্মের তাপদাহ যে পঢ়েছে বর্ষার উপর। সর্বচ্চো তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। গরমের এই তীব্রতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে গত দুই দিন থেকে অনাবরত লোডশেডিং। অসহনীয় লোডশেডিংয়ের কবলে পড়েছে রংপুরসহ বিভাগের আট জেলা।

 

লোডশেডিং হয়ে তা কখনও কখনও একটানা চার থেকে সাড়ে চার ঘণ্টা পর্যন্ত স্থায়ী হয়। বেশিরভাগ সময় এক ঘন্টার ভিতরে তিন থেকে চারবার লোডশেডিং হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

অসহনীয় গরমে বাড়ছে হিটস্ট্রোকের রোগীর সংখ্যাও। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১১জনসহ হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ১৫ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

 

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. ওবায়দুল আলম বলেন, হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার আগেই সতর্ক থাকতে হবে। দীর্ঘক্ষণ রোদে থাকা যাবে না। প্রচুর পরিমাণ তরল জাতীয় বিশেষ করে ওরস্যালাইন খেতে হবে। আর হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হলে তাকে ছায়ায় নিতে হবে। শরীর মুছে দিতে হবে। এতে আক্রান্তের অবস্থার উন্নতি না হলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে।

 

অনেকে বলছেন, দিনের পর দিন বাড়ছে গরমের তীব্রতা। সকাল থেকে আকাশে সূর্য উঠলে পথে বের হওয়াই দায়। জরুরি প্রয়োজনে যারা ঘরের বাইরে যাচ্ছেন, তারা তীব্র তাপদাহের হাত থেকে রক্ষা পেতে ছাতা ব্যবহার করছেন।

 

তীব্র্র দাবদাহের কবলে পড়েছে পশু-পাখিও। ঈদকে সামনে রেখে বেচাকেনার ভরা মৌসুমেও শপিং মল ও বিভিন্ন দোকানে ক্রেতার দেখা নেই। এদিকে প্রচন্ড গরমে জনজীবন অচল হয়ে পড়েছে।

 

রংপুর আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম কামরুল হাসান বলেন, সোমবার রংপুরের সর্বচ্চো তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। অতি প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া বাহিরে বের হতে তিনি পরামর্শ দেন। মূলত ভ্যাপসা গরমের কারণে অতিষ্ঠ হচ্ছে জনজীবন বলে জানান তিনি।

 

এদিকে বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে, জাতীয় গ্রিড থেকে চাহিদার তুলনায় অনেক কম বিদ্যুৎ পাওয়ায় ঘন ঘন লোডশেডিং দিতে হচ্ছে। তবে অবস্থা স্বাভাবিক হতে কত সময় লাগবে তা জানাতে পারেননি কোনও কর্মকর্তা।

 

রংপুর বিদ্যুৎ বিভাগের নর্দান ইলেক্ট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানির (নেসকো) নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রকৌশলী বলেন, রংপুর বিভাগে পিক আওয়ারে বিকাল ৫টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত নেসকো ও পল্লী বিদ্যুৎ মিলিয়ে চাহিদা রয়েছে ৭০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। সেখানে পাওয়া যাচ্ছে সর্বোচ্চ ৫০০ মেগাওয়াট। ফলে বাধ্য হয়ে লোডশেডিং করে রেশনিংয়ের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে হচ্ছে।

 

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বলেন, রংপুর জেলাসহ পুরো বিভাগে তিন দিন ধরে চার থেকে পাঁচ ঘণ্টার বেশি বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হচ্ছে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!