বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
ওমানকে হারিয়ে বিশ্বকাপে ২য় রাউন্ডের খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখলো বাংলাদেশ টিকা দেওয়ার জন্য স্কুলের শিক্ষার্থীদের তালিকা করা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশকে একটি অসম্প্রদায়িক রাষ্ট্র উল্লেখ করে ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি বন্ধের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর রংপুরের পীরগঞ্জের হামলায় জড়িতরা কেউ পার পাবে না: তথ্যমন্ত্রী প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদকে কটুক্তি করার প্রতিবাদে রংপুরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ রংপুরে ফেসবুকে পোস্ট দেয়াকে কেন্দ্র করে সহিংস ঘটনার পোস্টদাতা পরিতোষের স্বীকারোক্তি,কারাগারে প্রেরণ রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দু জেলে পল্লীতে হামলা পূর্বপরিকল্পিত: স্পীকার শিরীন শারমিন পীরগঞ্জে ধর্মান্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এসব হামলা চালিয়েছে: রংপুরে ইনু রংপুরের পীরগঞ্জে ‘ধর্ম অবমাননাকর’ পোস্ট দেওয়া সেই পরিতোষ গ্রেফতার,আইসিটি আইনে মামলা জেলা পর্যায়ে রচনা প্রতিযোগিতায় শিবরাম স্মৃতি প্রি-ক্যাডেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীর প্রথম পুরষ্কার গ্রহণ

রেফারির পেনাল্টি নিয়ে ভুল সীদ্ধান্তে সাফ থেকে বাংলাদেশের বিদায়! ফুটবলারদের কান্না

এপ্লাস অনলাইন
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১

কেউ গড়িয়ে কাঁদছেন, কেউ রেফারিকে ঘিরে ধরেছেন। স্বপ্নের ফাইনালটা হাতের মুঠো থেকে ফস্কে গেল। ৮৬ মিনিট পর্যন্ত ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশ। ৮৭ মিনিটে উজবেক রেফারির পেনাল্টির এক বাঁশিই বাংলাদেশের স্বপ্ন ভেঙে দিল। বক্সের মধ্যে নেপালের ফরোয়ার্ড পড়ে যান।

 

উজবেকিস্তানের রেফারি পেনাল্টি দিয়ে দেন। পাশাপাশি ডিফেন্ডার বিশ্বনাথ ঘোষকে দেন হলুদ কার্ড। পেনাল্টি থেকে নেপালের অঞ্জন বিস্টা গোল করলে স্কোরলাইন হয়ে যায় ১-১।

ম্যাচের ৭৮ মিনিট পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। বাংলাদেশ ফাইনালের পথেই হাঁটছিল। সারা ম্যাচ জুড়ে দুর্দান্ত খেলা গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকোর এক ভুলে গোটা দল চরম বিপদে পড়ে। বক্সের বাইরের বল ক্লিয়ার করতে এগিয়ে যান গোলরক্ষক জিকো। ক্লিয়ার করতে গিয়ে তার হাতে বল লাগলে রেফারি সরাসরি লাল কার্ড দেখান। ম্যাচের বাকি সময় বাংলাদেশ দশজন নিয়ে খেলে।

 

জিকো লাল কার্ড দেখায় কোচ অস্কার দ্রুত কয়েকটি পরিবর্তন করেন। বিপলুকে বদলে সিনিয়র গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাকে নামান। ফরোয়ার্ড সুমন রেজার পরিবর্তে ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদকে নামান। রানা নামার পরপরই একটি ফ্লাইং সেভ করেন। অভিজ্ঞ এই গোলরক্ষক পেনাল্টি শটের সময় সঠিক দিকে ঝাঁপ দিলেও সেভ করতে পারেননি। দশজন নিয়ে আর জেতা হয়নি বাংলাদেশের। ফলে চার ম্যাচে সাত পয়েন্ট নিয়ে নেপাল সাফের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালে পৌঁছে গেল। আর বাংলাদেশ চার পয়েন্ট নিয়ে আবার গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিল।

 

২০০৫ সালের পর থেকে বাংলাদেশ আর কখনো ফাইনাল খেলতে পারেনি। গতবার নিজেদের মাঠে এই নেপালের কাছে হেরেই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল।

 

প্রথমার্ধে বাংলাদেশ সুমনের গোলেই ড্রেসিংরুমে ফেরে। দ্বিতীয়ার্ধে নেপাল ম্যাচে ফেরার সব চেষ্টাই করেছে। প্রথমার্ধে নায়ক সুমন, দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশের নায়ক ও খলনায়ক গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। ৭৮ মিনিটে তার ভুলে বাংলাদেশ দশজনের দলে পরিণত হয়। এরপর রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তে বাংলাদেশের ফাইনাল স্বপ্নের সমাধি হয়ে গেল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com