শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন

সাধারণ মালিকদের আগের ভাড়ায় গাড়ি চালানো কোনোভাবে সম্ভব হবে না: রাঙ্গা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২১
সাধারণ মালিকদের আগের ভাড়ায় গাড়ি চালানো কোনোভাবে সম্ভব হবে না, ধর্মঘট যাতে না এ জন্য আমরা চেষ্টা করেছি বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি ও সংসদের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা।
চলমান পরিবহন ধর্মঘট বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির আহ্বানের ধর্মঘট নয় বলেও দাবি করেছেন তিনি।
শনিবার রাতে রংপুরে মাওলানা কেরামত আলী (রা.) মাজার জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়ের সময় তিনি এসব কথা বলেন।
রাঙ্গা বলেন,ধর্মঘট যাতে না এ জন্য আমরা চেষ্টা করেছি, প্রধানমন্ত্রী দেশে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছিলাম। সাধারণ মালিকদের দাবি আগের ভাড়ায় গাড়ি চালানো সম্ভব নয়। এখন আমরা যদি বেশি চাপ সৃষ্টি করি, তাহলে আমাদের নেতৃত্বই থাকবে না।আমরা ধর্মঘট করছি না, আহ্বানও করিনি। এটা সাধারণ মালিকরা করেছেন। কারণ, বাংলাদেশ পেট্রোয়িলাম করপোরেশন একতরফাভাবে এক রাতেই ডিজেল-কেরোসিনের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। যা যুক্তিসংগত নয়।
আরও বলেন, হঠাৎ করে ডিজেল-কেরোসিনের দাম বাড়ায় সাধারণ মালিকরা বলছেন এখন প্রতি কিলোমিটারে ৫২ পয়সা অতিরিক্ত খরচ হবে। যমুনা সেতুর টোল বাড়ানোয় প্রায় এক হাজার টাকা খরচ বাড়বে। এ ছাড়া সড়কে তো চাঁদা আদায় হচ্ছে। মালিক শ্রমিক ও বিভিন্ন সংস্থার লোকজন আছেন, তারাও চাঁদা তোলেন।
তিনি বলেন, কেরোসিন ও ডিজেলের দাম একসঙ্গে লিটারে ১৫ টাকা বাড়ানোর বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী জানেন কি না জানি না। তিনি দেশে নেই, হঠাৎ মূল্যবৃদ্ধিতে প্রধানমন্ত্রী সম্মত হতেন বলে আমরা বিশ্বাস করি না। আমাদের সঙ্গে আলোচনা না করে তেলের দাম একতরফাভাবে বাড়ানো ঠিক হয়নি। একটা শালীনতা তো থাকে, সেটাও বিপিসি (বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন) করেনি।
তিনি আরও বলেন, হঠাৎ করে ডিজেল-কেরোসিনের দাম বাড়ায় সাধারণ মালিকরা বলছেন এখন প্রতি কিলোমিটারে ৫২ পয়সা অতিরিক্ত খরচ হবে। যমুনা সেতুর টোল বাড়ানোয় প্রায় এক হাজার টাকা খরচ বাড়বে। এ ছাড়া সড়কে তো চাঁদা আদায় হচ্ছে। মালিক শ্রমিক ও বিভিন্ন সংস্থার লোকজন আছেন, তারাও চাঁদা তোলেন।’
সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী আশংঙ্কা প্রকাশ করেন ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব সর্বত্র পড়বে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রসহ সব পণ্যের দাম বেড়ে যাবে। কৃষকরা ডিজেল দিয়ে জমিতে সেচ দেন, তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।
মাজার জিয়ারতের সময় রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক হাজী আব্দুর রাজ্জাক, মহানগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মহানগর জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি শাহিন হোসেন জাকির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!