শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

স্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্নের মৃত্যু কী স্বাভাবিক?

এপ্লাস অনলাইন
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৫ মার্চ, ২০২২

পর পর দুটি দুঃসংবাদ নাড়িয়ে দিল ক্রিকেটবিশ্বকে। অস্ট্রেলীয় গ্রেট রডনি মার্শের মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরই খবর এল একই দেশের আরেক কিংবদন্তি আর নেই। শতাব্দীর সেরা পাঁচ উইজডেন ক্রিকেটারের অন্যতম এই কিংবদন্তি লেগ-স্পিনারের মৃত্যুতে বিস্মিত অনেকেই। তার মৃত্যু নিয়ে ধোয়াঁশার সৃষ্টি হয়েছে। তার মৃত্যুকে স্বাভাবিক মেনে নিতে পারছেন না অনেকে।

 

সেটাই স্বাভাবিক। কারণ সুস্থই ছিলেন ওয়ার্ন। কদিন আগেও ইংল্যান্ডের একটি দলের কোচ হতে আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি। মৃত্যুর সময় থাইল্যান্ডে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন শেন ওয়ার্ন। অবশেষে শেন ওয়ার্নের মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে মুখ খুলল থাইল্যান্ড পুলিশ। প্রাথমিক তদন্ত শেষে শেন ওয়ার্নের মৃত্যু সন্দেহজনক নয় বলে জানিয়েছেন তারা।

 

থাইল্যান্ড পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রাথমিক তদন্ত শেষে শেন ওয়ার্নের মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। তবে এ লেগ-স্পিনারের মৃত্যুকে সন্দেহজনক মৃত্যু হিসাবে বিবেচনা করছে না।

 

বার্তা সংস্থা রয়টার্সতে পুলিশ কর্মকর্তা চেচেভিন নাকমুসিকবলেছেন, ‘শেন ওয়ার্নকে সিপিআর (কৃত্রিম শ্বাস এবং বুকে সংকোচন) দিয়েছিল তার ৪ বন্ধু। এরইমধ্যে একটি অ্যাম্বুলেন্স ডাকে তারা। এই সময় একটি জরুরি সেবাদানকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।  তারাও আবার ১০-২০ মিনিটের জন্য সিপিআর দেয়। এরপর ওয়ার্নকে নিয়ে যাওয়ার জন্য থাই ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালে।  পথিমধ্যে অ্যাম্বুলেন্সে ফের পাঁচ মিনিটের জন্য সিপিআর দেওয়া হয়। কিন্তু ততক্ষণে শেন ওয়ার্ন মারা যান।’

 

এ বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার মন্ত্রী মারিস পেইন বলেছেন,  ‘আমরা থাই কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ওয়ার্নের মৃত্যুর বিষয় নিয়ে তদন্তের কাজ করছি। তার দেহ আনতে সহায়তা করা হবে।’এদিকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেন ওয়ার্নের শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।

 

ফক্স ক্রিকেট আরও জানিয়েছে, শেন ওয়ার্নের মৃত্যু হয়েছে থাইল্যান্ডের কোহসামুইতে। ওয়ার্নের ম্যানজেম্যান্টের পক্ষ থেকে এক প্রেস বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘শেন ওয়ার্নকে তার ভিলায় অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়।এরপর মেডিক্যাল টিমের সর্বোচ্চ চেষ্টা সত্ত্বেও তাকে আর বাঁচানো যায়নি। ওয়ার্নের পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের গোপনীয়তা বজায় রাখার অনুরোধ করা যাচ্ছে। পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে। ‘

 

১৯৯২ সালে সিডনিতে ভারতের বিপক্ষে ওয়ার্নের টেস্ট অভিষেক হয়েছিল। অভিষেকে ১৫০ রানে পেয়েছিলেন মাত্র ১ উইকেট।  পরের বছর ওয়েলিংটনে হয় ওয়ানডে অভিষেক। ১৪৫ টেস্টের ক্যারিয়ারে ৭০৮টি উইকেট নিয়েছেন ওয়ার্ন।  যা টেস্ট ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এর ৩২৫টি আবার ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। এছাড়া ১৯৪ ওয়ানডেতে ২৯৩ উইকেট নিয়েছিলেন। ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে শিরোপা জয়ের পাশাপাশি ফাইনালে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন ওয়ার্ন।

 

১৯৯৩ অ্যাশেজে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মাইক গ্যাটিংকে বোল্ড করা ওয়ার্নের সেই জাদুকরি ডেলিভারিটি ‘শতাব্দীর সেরা ডেলিভারি’ হিসেবে ক্রিকেট ইতিহাসে চিরস্থায়ী জায়গা করে নিয়েছে। লেগ স্পিন যখন ধুঁকছিল, তখনই ওয়ার্ন লাইমটাইটে এসে এই ঘূর্ণি আক্রমণে যোগ করেন নতুন গ্ল্যামার ও আক্রমণাত্মক মনোভাব। তিনি একাই হারাতে বসা লেগ স্পিন আক্রমণকে পুনরুজ্জীবীত করেছিলেন। এই কিংবদন্তি স্পিনার দুই দিন আগেও ইংল্যান্ড জাতীয় দলের কোচ হতে চেয়েছিলেন

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!