সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:২৩ অপরাহ্ন
নিউজ ফ্লাশ
পঞ্চগড়ে মন্দিরে যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে শিশুসহ ২৪ জনের মৃত্যু হিজাব ইস্যুতে উত্তাল ইরান: নারীসহ ৭০০ বিক্ষোভকারী গ্রেফতার, নিহত ৩৫ শারদীয় দুর্গাপূজা: হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বেড়েছে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য, বেরোবি শিক্ষার্থী আটক আগামী পহেলা ডিসেম্বর বিভাগীয় লেখক পরিষদ রংপুরের এক যুগ পূতি নগরজুড়ে চ্যাম্পিয়নদের ছাদ খোলা বাসে বিজয় শোভাযাত্রা খোলা বাসে বিলবোর্ড মাথায় লেগে আহত ফুটবলার ঋতুপর্ণার মাথায় দুই সেলাই এই ট্রফি আমাদের দেশের জনগণের জন্য রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা: ৪ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল দিনাজপুর বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার চার বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত

হাইটেক ইতিহাসের পাতায় স্থান করে নিলো রংপুর

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

হাইটেক ইতিহাসের পাতায় স্থান করে নিলো রংপুর। ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের মধ্যে দিয়ে ড. ওয়াজেদ মিয়া হাইটেক পার্ক বা ড. ওয়াজেদ মিয়া ইলেকট্রনিক্স সিটির নির্মাণ কাজ শুরু হলো এবং বহুল প্রত্যাশায় আলোর মুখ দেখলো।

 

ভার্চুয়ালী যুক্ত হয়ে জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী এবং সরেজমিনে উপস্থিত হয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এই নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। এর মাধ্যমে শুরু হয় নতুন স্বপ্নের যাত্রা।
বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রংপুর মহানগরীর খলিশাকুড়ি এলাকায় ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়।

 

অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালী জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী বলেন,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাই কারণ তারই প্রচেষ্টায় এই পার্ক হচ্ছে। তিনি রংপুরের উন্নয়নে সদা সর্বোদায় সচেষ্ট রয়েছেন। তাঁর বিভিন্ন গৃহিত প্রকল্প বাস্তবায়নের মধ্যে দিয়ে সেটা লক্ষ করে থাকি। আজকের বাংলাদেশে ডিজিটাল ও আইসিটির যে প্রসার তা গত ১২, ১৪ বছরে আমরা দেখেছি সেটা সমগ্র বিশ্বে বাংলাদেশকে একটি উন্নত স্থানে নিয়ে গেছেন তিনি।

 

ফলক উম্মোচন করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক সাংবাকিদের বলেন,ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে রংপুরে এই হাইটেক পার্ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এছাড়া এই আইটি পার্কে ইলেকট্রনিক পণ্য, যন্ত্রাংশ এবং সফটওয়্যার উৎপাদন করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করা হবে। সজীব ওয়াজেদ জয় রংপুরের সন্তান হিসেবে রংপুরের সামগ্রীক উন্নয়নের দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়েছেন। তারই প্রতিশ্রæতি ছিল রংপুরের তরুণ প্রজন্মে কর্মসংস্থানের ঠিকানা প্রযুক্তি নির্ভর, আত্মকর্মসংস্থানের ঠিকানা রংপুরের মাটিতে একটি অত্যাধুনিক পার্ক নির্মাণ করে দিবেন। আজ সেটি বাস্তবায়নের পথে কাজ শুরু করেছি।

 

বিশিষ্ট পরমানু বিজ্ঞানী ড.ওয়াজেদ মিয়ার নামে নামকরণ করে কাজ শুরু করছি। আশা করছি দুই বছরের মধ্যে কাজ শেষ হবে। প্রতি বছরে এখান থেকে ৩ হাজার বেশী তরুণ তরুনীর কর্মসংস্থান তৈরি করতে পারবো।

 

এসময় জেলা প্রশাসক আসিব আহসান,মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ, প্রকল্প কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জেলা প্রশাসের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

জানা যায়, রংপুর সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খলিশাকুড়ি এলাকায় ১০ একর জমিতে ১৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে এই সিটি নির্মাণ করা হচ্ছে। সরকারের আইসিটি বিভাগ এই প্রকল্প হাতে নিয়েছে। ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতায় এই পার্ক নির্মিত হবে। নকশানুযায়ী তিনটি ভবনের মধ্যে একটি হবে স্টিল স্ট্রাকচারে তৈরি ৭ তলা বিশিষ্ট ভবন। এ ছাড়া দুটি ৩ তলাবিশিষ্ট ক্যানটিন ও অ্যাস্ফিথিয়েটার ভবন (স্টিল স্ট্রাকচার) এবং ডরমিটরি ভবন (আরসিসি) থাকবে।

 

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

এ প্লাস ডিজিকম সার্ভিস

© All rights reserved © 2020 Aplusnews.Live
Design & Development BY Hostitbd.Com

অনুমতি ছাড়া নিউজ কপি দন্ডনীয় অপরাধ। কপি করা যাবে না!!